গ্যাস বিল বকেয়া থাকায় কাঁচপুর সিনহার গ্রুুপের গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন

0
71

নিজস্ব প্রতিবেদক, সোনারগাঁও নিউজ:

অবৈধ গ্যাসের ব্যবহার প্রতিরোধ এবং বকেয়া গ্যাস বিল আদায়ে কঠোর অবস্থানে তিতাস গ্যাস ট্রান্সমিশল অ্যান্ড ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পনি (তিতাস)। প্রায় এক মাস যাবৎ নিয়মিত অবৈধ গ্যাস সংযোগ এবং বিল আদায়ের অভিযান চালিয়ে প্রায় এক লাখ আবাসিক অবৈধ গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন করেছে। এছাড়া বকেয়া গ্যাস বিল আদায়ে কঠোর অবস্থানে রয়েছেন।
নারায়নগঞ্জের সোনারগাঁওয়ের কাঁচপুরে অবস্থিত দেশের বৃহৎ শিল্প সিনহার গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দিয়েছে তিতাস। তিতাসের নারানগঞ্জের ডিএমডি ইমাম উদ্দিন শেখ বলেন, সিনহা গ্রুপের প্রায় ১০০ কোটি টাকা গ্যাস বিল বকেয়া জমা পড়েছে। বার বার তাগিদ দিলেও তারা বকেয়া বিল পরিশোধ করছে না।
তিনি বলেন, ফলে বৃহস্পতিবার বিকেল ৫ টার দিকে সোনারগাঁ অফিসের আওতাধীন কাঁচপুরে অবস্থিত সিনহা গ্রুপ এর তিনটি প্রতিষ্ঠানটির মধ্যে সিনহা ডেনিম লিমিটেডে অভিযান চালিয়ে অনুমোদনহীন অতিরিক্ত স্থাপনা পাওয়া যায়। যেখানে অবৈধভাবে গ্যাস ব্যবহার হচ্ছিল। এছাড়া প্রায় ১শ কোটি টাকা বকেয়া থাকায় গ্যাস বিল পরিশোধ না করায় গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হয়েছে।
এ বিষয়ে তিতাস গ্যাস কোম্পানির ব্যবস্থাপনা পরিচালক প্রকৌশলী আলী ইকবাল মোহাম্মদ নুরুল্লাহ বলেন, অবৈধ গ্যাস ব্যবহার ও বকেয়া গ্যাস বিল আদায়ে জিরো টলারেন্স নীতি গ্রহন করা হয়েছে।
তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী, প্রতিমন্ত্রী এবং সচিব মহোদয় আমাকে নির্দেশ দিয়েছে অবৈধ গ্যাস সংযোগ উচ্ছেদ করতে এবং বকেয়া বিল আদায় করতে। ফলে বার বার তাগাদা দেওয়ার পরও যেসব শিল্প প্রতিষ্ঠান গ্যাস বিল পরিশোধ করছে না তাদের সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেওয়া হবে।
প্রসঙ্গত, নারায়নগঞ্জের সোনারগাঁওয়ের কাঁচপুরে সিনহা গ্রুপের বেশ কয়েকটি শিল্প প্রতিষ্ঠান রয়েছে। এসব শিল্প প্রতিষ্ঠানে প্রায় ২০-২৫ হাজার শ্রমিক কাজ করে থাকে। গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন হওয়ার কারনে কারখানাটি পুনরায় গ্যাস গ্যাস সংযোগ না পেলে বন্ধ থাকবে।
নাম প্রকাশ না করার শর্তে কারখানার একাধিক শ্রমিক জানিয়েছেন, সিনহার গ্রুপের শিল্প প্রতিষ্ঠানগুলোতে প্রায় তিন মাস যাবৎ বেতন হচ্ছে না। এ অবস্থায় অবৈধ গ্যাস ব্যবহার এবং বিল বকেয়া থাকায় সংযোগ বিচ্ছিন্ন হওয়ার গভীর সংকটে পড়বে শ্রমিকরা।

আপনার মতামত কমেন্টস করুন